Homeরাজনীতিসরকার দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে এসেছে- নুরুলহক নুর

সরকার দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে এসেছে- নুরুলহক নুর

‘দুর্নীতি, লুটপাট করে সরকার দেশকে খাদের কিনারায় নিয়ে গেছে’ বলে মন্তব্য করে গণঅধিকার পরিষদ এর সদস্য সচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুলহক বলেছেন, মধ্যরাতে এক লাফে অকটেন ও পেট্রোলের দাম ৪৬ টাকা, কেরোসিন, ডিজেলের দাম ৩৪ টাকা বাড়িয়েছে সরকার। যা কোন বিবেক সম্পন্ন সরকার করতে পারে না।

দেশ চালাতে সরকার হিমশিম খাচ্ছে উল্লেখ করে নুরুলহক বলেন, সরকারি দলের নেতা-কর্মীদের সীমাহীন দুর্নীতি, বিদেশে অর্থপাচার, ঋণের ফাঁদে সরকার দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে এসেছে।এখন আমদানি ব্যয় মিটাতে পারছে না, রিজার্ভ ফুরিয়ে আসছে, দেশ চালাতে হিমশিম খাচ্ছে। তাই সরকার এখন জনগণের পকেট থেকে অর্থ ছিনতাইয়ের জন্য অস্বাভাবিকভাবে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি করেছে।
জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির ফলে সব কিছুর দাম বাড়বে, পরিবহন ভাড়া বাড়বে, জনগণ দুর্ভোগে পড়বে। জনগণ বাঁচুক আর মরুক তা নিয়ে সরকারের মাথাব্যথা নাই। কারণ, তারা তো জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ নয়।

বিনা ভোটের সরকার জনগণের ট্যাক্সের পয়সায় বেতনভুক্ত পুলিশকে রক্ষী বাহিনীর ভূমিকায় অবতীর্ণ করে গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে গুলি করে মানুষ হত্যা করাচ্ছে। শেখ হাসিনার ফ্যাসিবাদের দোসর না হয়ে প্রশাসনকে জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে নুরুলহক বলেন, করোনা মহামারিতে ৬-৬.৫ কোটি মানুষ দরিদ্র সীমার নিচে চলে এসেছে। তাদের খেয়ে-পরে বেঁচে থাকা নিয়ে সরকারের ভাবনা নেই। কারণ, সরকার তো জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় যে তারা জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে কাজ করবে। তাই গণবিরোধী এই সরকারকে হঠাতে জনগণকে গণআন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে জ্বালানির মূল্য না কমালে সরকার পতনের কর্মসূচি দেয়া হবে বলে হুশিয়ারি জানান তিনি।

গণঅধিকার পরিষদ এর যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন বলেন, গণভবন ও বঙ্গভবনে লোডশেডিং হয়না, জনগণের ভ্যাট ট্যাক্সে টাকায় যে দেশ চালিত, সেখানে মানুষের বাড়িতে বাড়িতে কেন লোডশেডিং হবে? আওয়ামী লীগ অভিযোগ করে বিএনপি ভারতকে গ্যাস দেওয়ার চুক্তি করে ক্ষমতা আসে। আমার প্রশ্ন আওয়ামী লীগ ভারতকে কি এমন দিয়েছে যে, ভারত আওয়ামী লীগকে ৩ মেয়াদে ক্ষমতায় রেখেছে? জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়ে সরকার জনগণকে মারার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে না আসলে সরকার পতনের এক দফা ডাক দেওয়া হবে।

গণঅধিকার পরিষদ এর যুগ্ম সদস্যসচিব আব্দুজ জাহেরের উপস্থাপনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন গণঅধিকার পরিষদ এর যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান, আবু হানিফ, শহিদুল ইসলাম ফাহিম, ব্যারিস্টার জিসান মহসিন, আবদুল মালেক ফরাজী, ছাত্র অধিকার পরিষদ-এর সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা, যুব অধিকার পরিষদ এর সভাপতি মনজুর মোর্শেদ, শ্রমিক অধিকার পরিষদ এর সভাপতি আব্দুর রহমান প্রমুখ।

কেরোসিন, ডিজেল, পেট্রোলসহ জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে গণঅধিকার পরিষদ। গণঅধিকার পরিষদ এর সদস্যসচিব নুরুলহক নুরের নেতৃত্ব বিক্ষোভ মিছিলটি পল্টনের দলীয় কার্যালয়ের নিচ থেকে শুরু করে, পল্টন মোড়, প্রেসক্লাব, মৎস্য ভবন, কাকরাইল মোড় হয়ে প্রেসক্লাবে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

RELATED ARTICLES

Most Popular