Homeরাজনীতিথলের বিড়াল বের হওয়ার ভয়ে সরকার সাম্প্রদায়িক হামলার তদন্ত চায় না :...

থলের বিড়াল বের হওয়ার ভয়ে সরকার সাম্প্রদায়িক হামলার তদন্ত চায় না : নুর

নবদূত রিপোর্ট:

সরকার তার নিজ দলীয় ‘থলের বিড়াল’ বের হওয়ার ভয়ে সাম্প্রদায়িক হামলা-ভাঙচুরের তদন্ত করে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

আজ সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ‘সম্প্রতি বিনষ্টকারীদের চিহৃিত করে শাস্তি প্রদান এবং সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার’ দাবিতে এক বিক্ষোভ সমাবেশে একথা বলেন তিনি।

সমাবেশ শেষে রাজু ভাস্কর্য থেকে শহীদ মিনার পর্যন্ত মশাল মিছিল করেন তারা। মশাল মিছিলে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

নুরুল হক নুর বলেন, দূর্বৃত্তরা বিভিন্ন সময় যে অঘটন ঘটাচ্ছে তার বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে দাঁড়াতে হবে। শুধু সরকারের উপর ছেড়ে দিলে হবে না। কারণ সরকার এই ঘটনাগুলির সুষ্ঠু তদন্ত চায় না, বিচার করতে চায় না। কারণ তাহলে তাদের ‘থলের বিড়াল’ বের হয়ে আসবে।

এসময় তিনি যে সমস্ত মন্দির ভাঙচুর করা হয়েছে সরকারি খরচে সে সমস্ত মন্দির নির্মাণ এবং যেসব পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাদেরকে ওই তিন হাজার টাকা, পাঁচ হাজার টাকা নামেমাত্র সহযোগিতা নয়, যারা যতটুকু পরিমান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তার দ্বিগুণ পরিমাণ সহযোগিতা করার দাবি জানান।

তিনি বলেন, নাসিম নগরের মন্দির ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগে জড়িতে তিন জনকে স্থানীয় নির্বাচনে নৌকা প্রতীক দেয়া হয়েছিল। এর মাধ্যমে আমরা বুঝতে পারি সরকার এই অপশক্তিকে প্রশ্রয় দিচ্ছে। আজকে সাম্প্রদায়িক হামলার একটি ঘটনারও বিচার হচ্ছে না। একটা ঘটনারও তদন্ত হচ্ছে না।

নুর সরকারের সমালোচনা করে বলেন, বিভিন্ন জায়গায় শান্তিপ্রিয় মানুষকে উষ্কে দিতে তারা মিছিলে গুলি চালাচ্ছে। মিছিলে গুলি চালিয়ে তারা মানুষ হত্যা করে, মন্ত্রীরা উল্টাপাল্টা বক্তব্য দিয়ে পরিস্থিতিকে উষ্কে দিচ্ছে। এই ঘটনার সাথে যারাই জড়িত এমপি, মন্ত্রী, বিরোধী দল যাই হোক না কেন সকলকে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান তিনি।

এদিকে সন্ধায় রাষ্ট্রীয় মদদে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিরুদ্ধে ছাত্র-জনতার বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে প্রগতিশীল ৮ টি ছাত্র সংগঠন। এসময় সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অপসারণ দাবি করেন তারা।

RELATED ARTICLES

Most Popular