Homeরাজনীতিবাংলাদেশ আইনজীবী অধিকার পরিষদের আত্মপ্রকাশ

বাংলাদেশ আইনজীবী অধিকার পরিষদের আত্মপ্রকাশ

নবদূত রিপোর্ট:

কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক কমিটি অনুমোদনের মাধ্যমে
বাংলাদেশ গণ অধিকার পরিষদ-এর ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে বাংলাদেশ আইনজীবী অধিকার পরিষদ।

বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক ড. রেজা কিবরিয়া ও সদস্য সচিব নুরুল হক নুর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে আগামী তিন মাসের জন্য ব্যারিস্টার মো. জীশান মহসীনকে সমন্বয়ক করে
বাংলাদেশ আইনজীবী অধিকার পরিষদ-এর ২৭ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

কমিটিতে সহ-সমন্বয়ক হিসেবে আছেন- অ্যাড. খাদেমুল ইসলাম, সরকার নুরে এরশাদ সিদ্দিকী, শিরীন আক্তার শেলী, তৌফিক শাহরিয়ার খান, মো. পারভেজ,  মো. খালিদ হোসেন, শেখ শওকত হোসেন, সাজেদুল ইসলাম রুবেল, ব্যারিস্টার ইব্রাহীম খলিল।

সদস্য হিসেবে আছেন- অ্যাড বিপ্লব কুমার পোদ্দার, ড. মো. শোয়েব মাহমুদ, এরশাদুল বারী খন্দকার, লাবাবুল বাসার, মো. আবুল হোসেন, মো. মাহফুজার রহমান, মো. সোহেল আমিন, মো. জাহির ইসলাম, মো. হাবিবুর রহমান, মোজাহিদ শাহ, মুমু জান্নাত, মো. নাসির হোসেন, মোহাম্মদ ইয়াসির আরাফাত, মো. খায়বুর রহমান, মো. হাফিজুর রহমান, সুফিয়া আহমেদ, মো. তানিম চৌধুরী।

এ বিষয়ে নুরুল হক নুর বলেন, ‘গণঅধিকার পরিষদের পতাকাতলে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষকে সংগঠিত করে আমরা রাজনীতিতে একটা গুণগত পরিবর্তন আনতে চাই। রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়নের ফলে ভালো মানুষগুলো এখন রাজনীতি বিমুখ। অতীতে রাজনীতিতে আইনজীবিদের প্রাধান্য থাকলেও এখন সেটি তেমন নেই। আশা করি, সেক্ষেত্র গণঅধিকার পরিষদের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন আইনজীবি অধিকার পরিষদ আইনজীবিদের অধিকার সুরক্ষায় কাজ করার পাশাপাশি রাজনীতিতে আইনবিদদের প্রাধান্য ফিরিয়ে আনবে।

তিনি বলেন, ভালো মানুষ রাজনীতিতে এগিয়ে না আসলে দেশের পরিবর্তন হবে না। দেশের বর্তমান রাজনৈতিক, সাংবিধানিক সংকটে আইনজীবীদের এগিয়ে আসতে হবে। বিচারবিভাগ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ছাড়া গণতন্ত্র শক্তিশালী হবে না। বিচারবিভাগের স্বাধীনতা নিশ্চিত ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় আইনজীবী অধিকার পরিষদ ভূমিকা রাখবে।

RELATED ARTICLES

Most Popular